স্ট্রেস কমানোর সহজ কৌশল

stressবিএ নিউজ:মানসিক চাপ এমন একটি জিনিস যা আত্মবিশ্বাসকেও ভেঙে গুঁড়িয়ে দিতে পারে। এমনকি মানুষ নানা কারণে মানসিক চাপে পড়েই নিজেকে অনেক বেশি অসহায় হিসেবে খুঁজে পান। আবার অনেকের মধ্যে এই মানসিক চাপই সৃষ্টি করতে পারে ক্রোধ ও ঘৃণা। সুতরাং মানসিক চাপটাকে আমরা যতোটা নিরীহ ভাবি এটি ঠিক ততোটা নিরীহ নয়। বরং মানসিক চাপ বেশ ভয়াবহ সমস্যাই বটে। তাই এই সমস্যাটি থেকে যতো দূরে থাকা যায় ততোই ভালো। এবং এই মানসিক চাপ দূরে রাখার কাজটি আপনি বেশ সহজেই করতে পারবেন। ভাবছেন কীভাবে? চলুন তাহলে শিখে নেয়া যাক কিছু দারুণ কৌশল।
১) যা করছিলেন তা বন্ধ করুন

মানসিক চাপে পড়ে কাজ করতে থাকলে যাই করবেন না কেন তা ভুলই হবে। তাই প্রথমে যে স্ট্রেস হরমোন আপনার দেহে উৎপাদিত হয়েছে তা কমিয়ে নিন। মনোযোগ অন্যদিকে নিয়ে নেয়ার জন্য থামুন, প্রয়োজনে বাইরে তাকিয়ে বড় বড় নিঃশ্বাস নিন অথবা মেডিটেশন করে নিন কয়েক মিনিট। স্ট্রেস হরমোনের মাত্রা কমে গেলেই মানসিক চাপ কমে আসবে।
২) হাঁটাচলা করুন কিংবা বাইরে থেকে ঘুরে আসুন কিছুক্ষণ

আমরা যখন হাঁটাচলা করি তখন আমাদের পুরো দেহে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায় এবং মস্তিষ্কে সঠিক মাত্রার অক্সিজেন পৌছায়। এতে স্ট্রেস হরমোন অনেকাংশেই কমে আসে। সুতরাং মানসিক চাপে থাকলে ঘরে বসে থাকার চাইতে বাইরে থেকে ঘুরে আসুন।
৩) গান শুনুন

গবেষণায় দেখা যায় স্লো বিটের ক্লাসিক্যাল মিউজিক আমাদের মস্তিষ্ককে রিলাক্স করতে বিশেষভাবে সহায়ক। তাই মানসিক চাপে পড়লে ধুম ধারাক্কা নয়, খুব নরম সুরের ক্লাসিক্যাল মিউজিক শুনতে থাকুক কিছুক্ষণ। মন শান্ত হয়ে যাবে কয়েক মিনিটেই।
৪) অন্য কারো সাথে কথা বলুন

মানসিক চাপে পড়লে চুপচাপ একাকী কোথাও বসে থাকবেন না, এতে মন আরও অশান্ত হবে এবং আপনার সমস্যার সমাধান একেবারেই হবে না। অন্য যে কারো সাথে কথা বলুন, মন হালকা করার চেষ্টা করুন। এতে দেখবেন চাপটা ধীরে ধীরে কমে যাবে।
৫) নিজেকেই বোঝান

যদি কারো সাথে কথা বলতে না পারেন তাহলে নিজেকে নিজেই বোঝানোর দায়ভার নিয়ে নিন। ‘আমি শেষ, আর কিচ্ছু হবে না’ এই ধরণের কথা মনে না আউরে বলতে থাকুন, ‘প্রতিটি সমস্যার সমাধান রয়েছে, এই সমস্যাও শেষ হবে’। এতে ফিরে পেতে শুরু করবেন আত্মবিশ্বাস এবং আপনাআপনি দূর হয়ে যাবে মানসিক চাপ।