গরম করলে যেসব খাবার স্থাস্থ্যঝুঁকি বাড়ে

প্রাত্যহিক জীবনে কর্মব্যস্ততার কারণে বেশিরভাগ সময়ই আমাদের রান্না করার সময় হয়ে ওঠে না। তাই সামান্য একটু অবসর কিংবা ছুটি পেলেই আমরা একসঙ্গে অনেক খাবার রান্না করি। আর তা অনেকদিন সংরক্ষণের জন্য ফ্রিজে রেখে দেই। পরে প্রয়োজনমতো সেসব খাবার আমরা গরম করে 1446186394খেয়ে থাকি। এতে খাবারের অপচয় রোধ করা সম্ভব হলেও স্বাস্থ্যঝুঁকি বেড়ে যায়। কেননা এমন কিছু খাবার আছে যা রান্নার পর ফ্রিজে রেখে দিলে তা পুষ্টিগুণ হারায়। একইসঙ্গে এসব খাবার ফ্রিজ থেকে বের করে পরে গরম করলে তা বিষাক্ত হ্ওয়ার পাশাপাশি স্বাস্ব্যঝুঁকিও বাড়ে। কাজেই ঝুঁকি এড়াতে কিছু খাবার গরম না করে খাওয়াই বেশি ভালো।জেনে নিন পুনরায় গরম করে খেলে তা স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে কোন খাবারগুলো-

মুরগীর মাংস
ফ্রিজের রান্না করা মুরগীর মাংস পুনরায় গরম করে খাওয়া বিপদজনক। কেননা আবার গরম করলে এতে থাকা উচ্চ মাত্রার প্রোটিনের কার্যকারিতার পরিবর্তন হয় এবং তা অনেক সময় হজমের সমস্যা সৃষ্টি করে। কাজেই ফ্রিজ থেকে বের করে তা স্বাভাবিক তাপমাত্রায় আনার পর খান।

ডিম
ডিম উচ্চ তাপের সংস্পর্শে এলে বিষাক্ত হয়ে যায়। তাই সেদ্ধ ডিম পুনরায় গরম করা কখনই উচিত নয়। এতে হঠাৎ করেই পেট খারাপ হতে পারে।

আলু
উচ্চ পুষ্টিগুণ সম্পন্ন এই সবজিটি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো। কিন্তু পুনরায় গরম করলে এর বেশিরভাগ পুষ্টিগুণ হারানোর সঙ্গে সঙ্গে বিষাক্ত হয়ে উঠে। কাজেই এ খাবারটিও পরে গরম করে না খাওয়াই ভালো।

মাশরুম
মাশরুম দিয়ে কিছু রান্না করলে সঙ্গে সঙ্গেই খেয়ে ফেলতে হয়। নতুবা পরে আবারও গরম করে খেলে এর প্রোটিনের কার্যতালিকার পরিবর্তন হয়। ফলে হজমের সমস্যা সৃষ্টি হয়।

পালংশাক
পালংশাকও পুনরায় গরম করা বিপদজনক। এতে উচ্চমাত্রার নাইট্রেট রয়েছে, যা রান্নার পর পুনরায় গরম করলে পুরোপুরি নাইট্রেটে পরিনত হয়। এটি খেলে পরবর্তীতে দেহে ক্যান্সার সৃষ্টির সম্ভাবনা থাকে। তাই পালংশাক রান্নার সঙ্গে সঙ্গেই খেয়ে ফেলা ভালো।

বিট
এই সবজিটিতেও পালংশাকের মতো নাইট্রেট রয়েছে, যা পুনরায় গরম করা অত্যন্ত বিপদজনক। তবে এর মানে এই না যে পরের দিন এটা আর খাওয়া যাবে না শুধু মাত্র গরম না করে খেলেই হবে।

ধনেপাতা
নাইট্রেট থাকায় এটিও রান্নার পর পুনরায় আর গরম করা উচিত নয়। তবে যেহেতু স্যুপ কিংবা এই ধরনের রান্নাতে ধনেপাতা ব্যবহার করা হয়, তাই যদি পরে গরম করতেই হয় তাহলে সেই রান্না করা খাবারগুলো থেকে ধনেপাতা ফেলে দিয়ে পুনরায় গরম করে খেতে পারেন।

শালগম
উচ্চ মাত্রার নাইট্রেট থাকে শালগমেও। তাই এটিও পুনরায় গরম করা উচিত নয়, পরে খেতে হলে ঠাণ্ডা খাওয়াই উত্তম। এতে স্বাস্থ্যের সুরক্ষা নিশ্চিত হবে।

তথ্যসূত্র: ওয়েবসাইট।