প্রচ্ছদ ধর্ম ও জীবন

তোমাদের লেখা গল্প : প্ল্যানচ্যাট

 

:: যুক্ত মনন ::

এই গল্পটি আমাদের পরিবারের গল্প। উপরে নামটি পড়ে তোমরা হয়তোবা অনেকেই ভয় পেতে পারো। আসলে এটা এতো ভয়ের গল্প নয়।

প্রথমে আমাদের পরিবারে যতো বাচ্চা আছে তাদের সাথে তোমাদের পরিচয় করিয়ে দিই। আমি যুক্ত, আমার বোন যৌথ। আমার কাজিন অর্ণব, উৎসব, ঐশ্বিক, সুরমা ও সুরভী।

এখন গল্পের মূল কথা শুরু করবো। এতক্ষণ ওদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিলাম, কারণ ওরাই গল্পের মূল অংশ।

আচ্ছা, শুরু করি।

২০১১ সালের ডিসেম্বর মাস, গা কাঁপানো শীত পড়েছে। আমরা সবাই গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের সাতারপুরে। আমরা সব কাজিন একসাথে। তখন আমরা ঠিক করলাম, প্ল্যানচ্যাট করবো।

প্ল্যানচ্যাট মানে জানো তো? প্ল্যানচ্যাট অর্থ ভূত ডাকা। তার মানে আমরা সবাই ভূত ডাকব।

সবাই একটা রুমে লাইট অফ করে রুমের চারদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে মোমবাতি জ্বালালাম। অনেকটা ভয়ের আবহাওয়া তৈরি হয়ে গেল। আমরা তখন সুরভীকে অন্য ঘরে পাঠিয়ে দিলাম। কারণ তখন ওর বয়স মাত্র ১ বছর, ও ভয় পেতে পারে তাই।

আমরা সবাই তারপরে গা ঘেষেঁ ঘেষেঁ বসে ভূতকে ডাকতে থাকলাম। তখন হঠাৎ আমার চোখে পড়ল অর্ণব ভাইয়া কেমন যেন করছে। মাথা দোলাচ্ছে। কেমন যেন মুখটা করছে।

আমি সঙ্গে সঙ্গে উৎসবকে দেখালাম। ও দেখলো।

অর্ণব ও যৌথ দুজনই একই রকম ভঙ্গি করছে। হঠাৎ আমাদের পাশে একটা টেবিল ছিল। ওটার ওপর ফল আর ফল কাটার ছুরি ছিল। অর্ণব ভাইয়া ওই ছুরি হাতে নিয়ে আমাদের দিকে এল। তারপর আমরা সবাই ভয়ে ওই রুম থেকে চলে এলাম। খালি যৌথ আপু ও অর্ণব ভাইয়া রইল।

পরদিন জানলাম, ওটা ছিল ওদের দুজনের প্ল্যান করা।

আমরা যা রাগ করলাম ওদের ওপর সেটা আর বলার মতো না। হাঃ হাঃ হাঃ।

আচ্ছা, এই পর্যন্ত থাক। আরেকদিন নতুন গল্প নিয়ে হাজির হব তোমাদের সামনে।

বাই বাই... । #

Adil Travel Winter Sale 2ndPage

ধর্ম ও জীবন : সকল সংবাদ

আজকের এই দিনে
লোকে-যারে-বড়-বলে-বড়-সেই-হয়
আবদুল আউয়াল ঠাকুর : বাংলা প্রবচন হচ্ছে, আপনারে বড় বলে বড় সেই নয়, লোকে যা বড় বলে বড় সেই হয়। সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতাসীন হওয়ার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি কেন্দ্র করে এমন কিছু...