প্রচ্ছদ মানবাধিকার

ওয়েস্টার্ন লুক

:: ইশানা ইশরাত  ::

শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ তো সবসময়ই পড়া হয়, নিজের আউট লুকটা একটু অন্যভাবে দেখতে অনেকেরই ইচ্ছে হয়। তাছাড়া যা গরম পড়েছ, এই গরমে শাড়ি বা সালোয়ার কামিজের চেয়ে অনেকটাই আরামদায়ক পোশাক হচ্ছে জিন্স-টপস, জিন্স-ফতুয়া বা ফরমাল শার্ট-প্যান্ট। তবে এসব পশ্চিমা পোশাক পরার পাশাপাশি এর সঙ্গে সাজটাও হতে হবে মানানসই।

বর্তমানে স্টাইলের অনুষঙ্গ হিসেবে দেশি ঐতিহ্যবাহী পোশাকের পাশাপাশি ওয়েস্টার্ন বা পশ্চিমা পোশাকও খুব ভালোভাবেই রয়েছে তরুণ-তরুণীদের পছন্দের তালিকায়। যারা খুব বেশি ফ্যাশন সচেতন, তাদের কাছে আধুনিক ফ্যাশনের ট্রেন্ড হিসেবে পশ্চিমা পোশাক যথেষ্ট গুরুত্ব পাচ্ছে। আজকাল তাই কলেজ, ইউনিভার্সিটি পড়ুয়া তরুণী থেকে শুরু করে এক্সিকিউটিভ লেভেলের নারীরাও অহরহ পরছেন এই পশ্চিমা পোশাক।

এই অসহ্য গরমে ফ্যাশনের অনেকটাই স্বস্তি পাওয়া যায় পশ্চিমা পোশাকে। তাই গরমের কথা মাথায় রেখে অনেকে এই সময়টাতে পশ্চিমা পোশাককেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। গরমে শাড়ি বা সালোয়ার-কামিজের চেয়ে অনেকটাই আরামদায়ক পোশাক জিন্স-টপস, জিন্স-ফতুয়া বা ফরমাল শার্ট-প্যান্ট। তবে পশ্চিমা পোশাক পারার পাশাপাশি এর সঙ্গে সাজটাও হতে হবে মানানসই।

আপনি যখন শাড়ি পরে দেশি সাজে সাজবেন তখন কপালে টিপ, হাতে একগুচ্ছ চুড়ি আর খোঁপায় হয়তো থাকবে সদ্য ফোটা তাজা ফুল। আর যখন শাড়ির বদলে জিন্স-টপস বা ফতুয়া পরবেন কিংবা একেবারে ফরমাল প্যান্ট-শার্ট পরবেন তখন কী টিপ, চুড়ি কিংবা ফুল মানানসই হবে? আপনার উত্তরও নিশ্চয়ই না। তার মানে আপনি যখনই পোশাকে ভিন্নতা আনবেন, পাশাপাশি সাজটায়ও ভিন্নতা চলে আসবে। আসুন জেনে নেওয়া যাক ওয়েস্টার্ন পোশাকে আপনার মাঝে ওয়েস্টার্ন লুক ফুটিয়ে সাজটা কেমন হবে?


এ প্রসঙ্গে বিউটি এক্সপার্ট সীমা মুনতাহার পরমর্শ, গরমের এই সময়টাতে ওয়েস্টার্ন ড্রেসের সঙ্গে বেইজটা অনেক ন্যাচারাল এবং লাইট হতে হবে। কারণ গরমে বেশি ভারী বেজ হলে একদমই ভালো লাগবে না। হালকা বেইজের সঙ্গে চোখটা করতে পারেন ব্রাউনিশ টোনের। কারণ ব্রাউনটা সব সময় একটা ঠাণ্ডা অনুভূতি আনে, আর যিনি দেখবেন তার কাছেও খুব আকর্ষণীয় লাগবে।

মাশকারা খুব ভারী করে করতে পারেন, সঙ্গে হালকা চিকন করে কাজলের মতো লাইনার করুন। তাতে সাজটা দেখার মতো হবে। পাশাপাশি মার্শান করুন ড্রেসের সঙ্গে মিল রেখে। এতে গরমে বাইরে বের হলে অনেক ফ্রেশ ফিল করবেন। লিপসে ব্যবহার করতে পারেন বিভিন্ন কালারের লিপস্টিক। ড্রেসের ভ্যারিয়েশন থাকলে লিপসের কালারেও ভ্যারিয়েশন আনতে পারেন। আর যদি কেউ ওয়েস্টার্ন ড্রেস পরে রাতের পার্টিতে যান তাহলে রেড, পিংক কিংবা ন্যাচারাল কালারের লিপস্টিক ব্যবহার করুন।

হেয়ার স্টাইলের ক্ষেত্রে যেহেতু একেক জনের একেক ধরনের স্টাইল পছন্দ সেক্ষেত্রে গরমকে মাথায় রেখে পনিকেল বা বিভিন্ন স্টাইলে চুল বাঁধতে পারেন অথবা চাইলে চুল ছেড়ে দিয়েও বিভিন্নভাবে রাখতে পারেন। মনে রাখবেন, এই গরমে সাজসজ্জাটা খুব বেশি কিছু হতে হবে তা কিন্তু নয়। বরং সাজসজ্জায় যত বেশি সম্ভব ন্যাচারালের ছোঁয়া ধরে রাখা যায় ততই ভালো। কারণ আপনার ড্রেসটাই আপনাকে অনেক সুন্দরভাবে প্রেজেন্ট করবে। তবে ড্রেসটা হতে হবে অনেক বেশি মডার্ন লুকের। কিন্তু তাই বলে আপনি যদি সাজের কোনো অংশ ছেড়ে যান তাহলে কিন্তু সাজটা কমপ্লিট হবে না। এ কারণে সবকিছুই থাকবে, তবে ন্যাচারাল ফরমেটে থাকবে।

আপনার ড্রেসটা যদি ফর্মাল এবং অফিসিয়াল হয় তাহলে হালকা মেকআপের সঙ্গে হালকা অর্নামেন্টস ব্যহার করুন এবং চুলগুলো টেনে পেছনে বেঁধে দিন। আর ক্যাজুয়াল ড্রেস যেমন জিন্সের সঙ্গে ফতুয়া বা টপস পরলে মেকআপটা যথারীতি হালকাই হবে। তবে কানে একটু বড় সাইজের দুল এবং হাতে মোটা চুড়ি পরলে ভালো লাগবে। এ ধরনের ড্রেসে ছোট গয়না একদমই ভালো দেখাবে না। সবচেয়ে ভালো মানাবে যদি পরেন মাটির গয়না, টপস বা ফতুয়ার বদলে যদি টি-শার্ট পরেন তাহলে গয়না নির্বাচন করুন টি-শার্টের গলার ধরন বুঝে। হাই নেক টি-শার্টে গলায় কিছু না পরাই ভালো। কিন্তু লো নেক টি-শার্টে গলায় পরতে পারেন পছন্দসই লকেট।

 

আবার যদি টি-শার্টে অনেক বেশি লেখা বা কাজ করা থাকে তাহলে লকেট না পরাই ভালো। ওয়েস্টার্ন ড্রেসের সঙ্গে টিপ না পরাই ভালো তবে চাইলে ক্যাজুয়ালি পরতে পারেন ডেসের রঙের সঙ্গে মানানসই কালার দিয়ে। আর রাতের পার্টিতে ফর্মাল ড্রেস পরলে প্যান্ট-শার্টের সঙ্গে চুল খোলাই রাখুন, দেখতে ভালো লাগবে।

 

মডেল : রুমি
বাংলাদেশ স্থানীয় সময় : ০২৩৫ ঘন্টা, জুলাই ০৮, ২০১৩
আরএম

<a href="http://www.alexa.com/siteinfo/www.protimuhurto.com?p=rwidget#reviews" ><img src='http://www.alexa.com/images/widgets/black/dark/v2-125x60.png' alt='Review www.protimuhurto.com on alexa.com' /></a>

Adil Travel Winter Sale 2ndPage

মানবাধিকার : সকল সংবাদ

আজকের এই দিনে
লোকে-যারে-বড়-বলে-বড়-সেই-হয়
আবদুল আউয়াল ঠাকুর : বাংলা প্রবচন হচ্ছে, আপনারে বড় বলে বড় সেই নয়, লোকে যা বড় বলে বড় সেই হয়। সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতাসীন হওয়ার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি কেন্দ্র করে এমন কিছু...