প্রচ্ছদবাংলাদেশ

কারাগারে বসেই পিএইচডি করলেন খুনের আসামি

ডেস্ক: যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসিক হুসেন ফাকতু ২০ বছর ধরে কারাগারে বন্দি। কারাগারে বসেই তিনি সেরে ফেলেছেন পিএইচডি। তার গবেষণার বিষয় ছিল ইসলামিক স্টাডিজ। আসিক ফাকতু ভারতের সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করেছিলেন তার যাবজ্জীবন সাজা পুনর্বিবেচনার জন্য। কিন্তু image-34343-1472562264তার আবেদন আদালত নাকচ করে দিয়েছেন। জানা গেছে, ১৯৯২ সালে মানবাধিকার কর্মী হৃদয় নাথ ওয়াংচুকে হত্যায় যুক্ত থাকার অপরাধে ১৯৯৩ সাল থেকে সাজা খাটছেন আসিক ফাকতু। অবশ্য ২০০১ সালে জম্মু আদালত ফাকতুকে মুক্তি দিলেও সুপ্রিম কোর্ট ওই রায় বাতিল করে পুনরায় তাকে কারাগারে পাঠিয়েছিলেন। 
ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী যোদ্ধা আসিক হুসেন ফাকতুই একমাত্র কাশ্মীরী, যিনি খুনের মামলায় যাবজ্জীবন সাজা ভোগ করার সময় পিএইচডি সম্পন্ন করেছেন। কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ আসিক ফাকতুকে এই পিএইচডি ডিগ্রি দিয়েছে। এমনকি লেখাপড়ার ক্ষেত্রে আসিক ফাকতুর সাহায্য নিয়েই স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের গণ্ডি পেরিয়েছেন অন্তত ১২৫ জন ছাত্রছাত্রী।
Adil Travel Winter Sale 2ndPage

বাংলাদেশ : সকল সংবাদ

আজকের এই দিনে
লোকে-যারে-বড়-বলে-বড়-সেই-হয়
আবদুল আউয়াল ঠাকুর : বাংলা প্রবচন হচ্ছে, আপনারে বড় বলে বড় সেই নয়, লোকে যা বড় বলে বড় সেই হয়। সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতাসীন হওয়ার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি কেন্দ্র করে এমন কিছু...