সংসদেও অপমানিত হচ্ছেন নারীরা: খালেদা

nur 1 87709বিএ নিউজ: বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অভিযোগ করে বলেছেন সংসদে আজ নারীরা অপমানিত হচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদকে ইঙ্গিত করে বিএনপির নেত্রী বলেন, ‘যখন সংসদে স্বঘোষিত বিরোধী দল, তাদের নেতা বলেন যেখানে তাঁর বউ হয়েছে লিডার অব দ্য অপজিশন সেখানে যদি বলা হয় মহিলারা সব ‘শোপিস’। অথচ দেশে ৫০ ভাগ নারী। সে দেশের মা বোনকে কীভাবে অপমান করা হয়? কাজেই যে লোক মানুষকে সম্মান দিতে জানে না, মা বোনদের সম্মান দিতে জানে না তাদের নিয়ে যারা দল করে তারা কোনো দিন এ দেশের মানুষকে সম্মান দিতে পারবে না। গণতন্ত্র আনতে পারবে না।’

আজ সোমবার রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে বিকল্প ধারা বাংলাদেশ আয়োজিত ইফতার অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিকল্প ধারার সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী মহাসচিব মেজর (অব.)আবদুল মান্নান, জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান কাজী জাফর, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব, বিএনপির নেতা নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, গণফোরামের সভাপতিম-লীর সদস্য সুব্রত চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

গত ২৯ জুন সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার শীর্ষ পদে থাকা নারীদের ‘শোপিস’ বলেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদ। তাঁর এ বক্তব্যে তাৎক্ষণিক তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। বিশেষ করে নারী সংসদ সদস্যরা একযোগে সমস্বরে প্রতিবাদ করেন।

এইচ এম এরশাদের এই মন্তব্যের জন্য তাঁর স্ত্রী সংসদে বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম রওশন এরশাদ দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চান।

অবশ্য নারী সাংসদদের তীব্র প্রতিবাদের মুখে এরশাদ তাৎক্ষণিকভাবেই বলেন, ‘ঠিক আছে, যদি কথাটা বলে থাকি, তবে তা প্রত্যাহার করে নিচ্ছি।’ তাঁর বক্তব্য শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ‘শো-পিস’ শব্দটি কার্যবিবরণী থেকে এক্সপাঞ্জ করার ঘোষণা দেন।