হট্টগোল-হাতাহাতি-বহিস্কারের মধ্য দিয়ে বিএনএফর যাত্রা শুরু

:: প্রতিমুহূর্ত প্রতিবেদন ::
নির্বাচন কমিশনে সদ্য নিবন্ধন পাওয়া বিতর্কিত রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের (বিএনএফ) সংবাদ সম্মেলনে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক মোয়াজ্জেম হোসেন মজলিশকে বহিস্কার করা হয়েছে।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে এ ঘটনা ঘটে।

জাতীয় নির্বাচন নিয়ে নিজেদের অবস্থান জানাতে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছিল সদ্য নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল বিএনএফ। সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে দলের উপস্থিত নেতাদের নাম উল্লেখ করা হয়।

এসময় পদ মর্যাদার ভিত্তিতে ক্রমানুসারে দলের নেতাদের নাম না বলায় ই আপত্তি তোলেন বিএনএফের যুগ্ম আহ্বাবায়ক মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিশ।

এক পর্যায়ে হট্টগোল শুরু করেন তিনি। পরিস্থিতি সামাল দিতে তাৎক্ষণিক ওই নেতাকে দল থেকে বহিস্কার করেন সভাপতি আবুল কালাম আজাদ। পরে তাকে জোর করে সংবাদ সম্মেলন কক্ষ থেকেও বের করে দেয়া হয়।  

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য পর্যাপ্ত দলীয় প্রস্তুতি নেওয়ার সুবিধার্থে ২৪ জানুয়ারির পরে নির্বাচন অনুষ্ঠিত করার দাবি জানিয়েছে বিএনএফ সভাপতি।

তিনি বলেন, সব দলের অংশগ্রহণে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে হবে। কাউকে মাইনাস করে নির্বাচন করা ঠিক হবে না। তাদের বাদ দিয়ে যে নির্বাচন হবে, তা স্থায়িত্ব পাবে না। নির্বাচন কমিশন একবার তফসিল ঘোষণা করে আবার যেন পুনঃতফসিল ঘোষণা না করে। এতে জনগণের মনে শঙ্কা তৈরি হবে।

আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘সব দল যেন নির্বাচনে অংশ নেয়, সে চেষ্টা বিএনএফ অব্যাহত রাখবে। আমরা যেহেতু একটি নিবন্ধিত দল, তাই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমরা অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি বলেন, ‘৪২ বছর ধরে সব দল ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করে আসছে। তবে মওলানা ভাসানী যেমন ক্ষমতা চাইতেন না, তেমনি আমরাও ক্ষমতা চাই না। কারণ ক্ষমতা মানুষকে ভালো কাজ করতে দেয় না।’

বিএনএফ সভাপতি বলেন, ৭ নভেম্বর থেকে ১৪ নভেম্বর গণবিজ্ঞপ্তি জারির পর কোনো রাজনৈতিক দল এটা নিয়ে আপত্তি তোলেনি। ফলে ১৮ নভেম্বর বিএনএফকে নির্বাচন কমিশন নিবন্ধন দেয়। কোনো আপত্তি না তোলায় বিএনপিকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘এরশাদ একজন স্বৈরশাসক ও সাবেক সেনা কর্মকর্তা। তিনি একজন বড় পরিকল্পনাকারী। কখন  কী করেন, ঠিক নেই। তাঁর থেকে আপনি সাবধান থাকুন।’

এরশাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনার চালাকি মানুষ ধরে ফেলেছে। আর চালাকি চলবে না।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনএফের সহ-আহ্বায়ক জাহানারা বেগম, সদস্য সচিব আরিফ মঈনুদ্দিন প্রমুখ।


বাংলাদেশ স্থানীয় সময় : ১২৩০ ঘন্টা, ২৩ নভেম্বর, ২০১৩
মাহবুব জামান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
এমজে