জনপ্রিয় জাম্পস্যুটের আকর্ষনে নারী

530b8জাম্পস্যুটের পায়ের দিকটা বানাতে পারেন পাতিয়ালা ঢংয়ে, জাম্পস্যুটের ফিটিং হওয়া চাই নিখুঁত, দুরকম কাপড় ব্যবহারেও নকশায় বৈচিত্র্য আনা যায়বেশ কিছু নতুন ফ্যাশন ট্রেন্ড দেখা যেতে শুরু করেছে এ বছর। চাপা জিনস আর একরঙা লেগিংসের রাজত্ব একটু নড়বড়ে করে দিয়েই এখন পাওয়া যাচ্ছে পালাজ্জো, ছাপা লেগিংস ইত্যাদি। এ ধারায় নতুন সংযোজন জাম্পস্যুট। পাশ্চাত্যের জনপ্রিয় পোশাক জাম্পস্যুট এখন এসেছে এ দেশের বাজারেও। দেশি কাপড় ও নকশার ছোঁয়ায় বৈচিত্র্যময় এ পোশাক যেন আরও বৈচিত্র্য ছড়িয়েই ধরা দিতে যাচ্ছে এ দেশের ফ্যাশন অঙ্গনে। পাশ্চাত্য ধারার পোশাক হলেও এতে দেশি ধাঁচে অল্প ব্লকপ্রিন্ট, টাই-ডাই বা হাতের কাজের নকশা করে দারুণ ফিউশন করা যেতে পারে। এতে একই সঙ্গে পোশাকে যেমন পাওয়া যাবে দেশীয় আমেজ, তেমনি আসবে নতুনত্ব। কথা হলো অভিনয়শিল্পী সোহানা সাবার সঙ্গে। অভিনয়ের পাশাপাশি ফ্যাশন ডিজাইনও করেন তিনি। জানালেন, এখনকার ফ্যাশনের মজাটাই হলো ইচ্ছামতো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার মধ্যে। যেমন নিজের একটি রেশমের শাড়ি দিয়েই তিনি তৈরি করে ফেলেছেন একটি জাম্পস্যুট। তবে পরতে হবে মানানসইভাবে। জাম্পস্যুটের স্টাইল নিয়ে টুকিটাকি জানালেন সাবা।
জর্জেট, লিনেন ও সুতি কাপড় দিয়েও তৈরি করা যাবে এই পোশাক। হাফ হাতা বা ফুল হাতা তো বটেই, এমনকি চাইলে স্লিভলেস হতে পারে এটি। এর সঙ্গে ওড়না বা স্কার্ফ মানায় না বলেই সাবার মত। স্বাচ্ছন্দ্যবোধের জন্য চাইলে ফুল হাতা লম্বা কটিও পরতে পারেন। আবার ওপরের অংশের সামনের দিকে ঘন কুঁচি দিয়ে ডিজাইন করে নিতে পারেন।
রেশমের শাড়ি দিয়ে তৈরি জাম্পস্যুটযেকোনো রকমের গলার কাটেই ভালো লাগবে জাম্পস্যুট। এর নিচের দিকটা হতে পারে পালাজ্জো ধাঁচের অথবা একেবারে সাধারণ প্যান্টের মতো। আবার পাতিয়ালা পাজামার মতো কুঁচি দিয়েও বানানো যেতে পারে।
যাঁদের উচ্চতা কিছুটা কম, তাঁরা জাম্পস্যুটের নিচের ভাগে বাড়তি কোনো অংশ যেমন লেইস অথবা চওড়া বর্ডার দিলে আরও খাটো দেখাবে।
এটি ঢিলেঢালা হবে নাকি একদম আঁটসাঁট, তা একেবারেই নির্ভর করবে আপনার ব্যক্তিত্ব, শরীরের গঠন ও পছন্দের ওপর। অর্থাৎ এর ফিটিং কেমন হবে, তার কোনো ধরাবাঁধা নিয়ম নেই। তবে চাপা বা ঢিলেঢালা—যা-ই হোক, ফিটিং একদম নিখুঁত হওয়া চাই। কোমরে বেল্ট বা ইলাস্টিক ব্যবহার করতে পারেন।
পার্টিতে জমকালো ভাব আনার জন্য একরঙা এবং অন্য সময় কিছুটা ফাংকি লুক আনার জন্য ছাপা নকশার জাম্পস্যুট বেছে নেওয়ার পরামর্শ দেন সাবা। তার সঙ্গে পায়ে হাই হিলেই বেশি স্মার্ট দেখাবে। তবে পরা যাবে স্লিপার এমনকি স্নিকার জুতাও। যদি তা পোশাকের কাট ও নকশার সঙ্গে মানানসই হয়ে থাকে।
ক্যাটস আইয়ের পরিচালক আশরাফুদ্দিন জানান, তাঁদের সংগ্রহে রয়েছে ক্যাশমিলান ও লিনেন কাপড়ের তৈরি কিছু জাম্পস্যুট। তার সঙ্গে মিলিয়ে কোমরে পরার বেল্টও পাবেন এখানে। এ ছাড়া বদরুদ্দোজা সুপার মার্কেটেও একটু খুঁজলে পেয়ে যাবেন জাম্পস্যুট।